ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্ক: পটিয়ায় দুদিন ব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে।


পটিয়ায় দুদিন ব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধন

ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্ক: পটিয়ায় দুদিন ব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে। 
উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়া এ মেলাটি আজ বুধবার বিকেলে সম্পন্ন হবে। এদিকে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার প্রথম দিন দর্শনার্থী ও শিক্ষার্থীদের নজর কেড়েছে পটিয়া সরকারী কলেজে সাত শিক্ষার্থীদের তৈরি করা ‘একটি সুপরিকল্পিত ও আদর্শ শহর’ প্রজেক্টটি। পটিয়া সরকারী কলেজের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে তৈরি করা এ প্রজেক্টটি ভবিষ্যতে সুন্দর নগর তৈরিতে কাজে লাগতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন মেলায় আশা দর্শনার্থী ও শিক্ষার্থীরা। আয়োজকদের সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্কুল, কলেজ, পটিয়া পৌরসভা, উপজেলা প্রশাসন সহ গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জিডিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধন করেন পটিয়া আসনের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকেয়া পারভিনের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ চৌধুরী টিপু।

মেলায় অংশগ্রহণ করে পটিয়া সরকারী কলেজ, পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়, এনজিও সংস্থা নওজোয়ান, সূর্যের হাসি ক্লিনিক, লাভ দ্যা চিলড্রেন, ঘাসফুল, ইলমা, চক্রশালা কৃষি উচ্চ বিদ্যালয়, দক্ষিণ ভূর্ষি উচ্চ বিদ্যালয়, ইউনিয়ন কৃষি উচ্চ বিদ্যালয়, মনসা স্কুল এন্ড কলেজ, খলিলুর রহমান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আবদুর রহমান সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন, ইসলামী ব্যাংক, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, কৃষি ব্যাংক, পটিয়া হামীম আইটি সোর্স, পটিয়া পৌরসভা, পটিয়া উপজেলা প্রশাসন, ইউনিয়ন ডিজিটাল, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, লাখেরা উচ্চ বিদ্যালয়, রেনেসা কম্পিউটার। 
মেলায় দেখতে আশা পটিয়া আবদুস সোবহান রাহাত উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাজ্জাত হোসেন বলেন, প্রদর্শিত স্টল গুলোর মধ্যে পটিয়া সরকারী কলেজের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে একটি সুপরিকল্পিত ও আদর্শ শহর প্রজেক্টটিই ভালো লেগেছে। পটিয়া সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী ও একটি সুপরিকল্পিত ও আদর্শ শহর প্রজেক্টের দলনেতা এমএ কে ইসলাম বলেন, আমরা সাত জন বন্ধু এ প্রজেক্টটি তৈরি করেছি। ভবিষ্যত ভাবনাকে কাজে লাগাতে মূলত আমাদের এ প্রচেষ্ঠা। এ মেলায় প্রদর্শনির মাধ্যমে প্রজেক্টটি বিস্তৃতি ঘটবে বলে তারা আশা প্রকাশ করেন। বন্ধুরা হলো কেএম জুনায়েদ, সাফাউজ্জামান চয়ন, শাহরিয়ার রশিদ, নেওয়াজ কাদের খান, সৌমিক বড়ুয়া আপন, শাহরিয়ার আকবর।

ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় চাঁদা বাণিজ্যের অভিযোগ: এদিকে দুইদিন ব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় উপজেলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো থেকে ৩শ টাকা হারে চাঁদা বাণিজ্যের অভিযোগ তুলেছে কয়েকটি স্কুলের প্রধান শিক্ষকরা। তারা জানায়, নিয়ম বহির্ভূত ভাবে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে মেলা উপলক্ষ্যে তিনশ টাকা করে প্রত্যক স্কুলকে দিতে হবে। এব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি পটিয়া উপজেলার সভাপতি ও পিঙ্গলা নবীন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কেএম বখতেয়ারুল হক বলেন, এরআগেও বৈশাখী মেলার জন্য বিভিন্ন স্কুল থেকে টাকা নেয়া হয়েছিল। এবারও মেলার জন্য উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার অনুরোধে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তারা স্কুলে স্কুলে ডিজিটাল মেলার জন্য তিনশ টাকা করে চাঁদা দেয়ার ব্যাপারে তাগিদ দেন। পরবর্তীতে শিক্ষকদের মাঝে এ নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়ায় শিক্ষকরা এখনো পর্যন্ত টাকা দেয়ার ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। তবে সরকারী কোন নিয়ম ছাড়ায় এ টাকা নিচ্ছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। 
এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোতাহার বিল্লাহ জানান, প্রথমে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো থেকে টাকা নেয়ার আলোচনা হলেও পরে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। মেলা উপলক্ষ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো থেকে কোন ধরনের টাকা নেয়া হয়নি এবং হবেও না।

Like us on https://www.facebook.com/VoiceofPatiyaFans
Share To:

Voice of Patiya

Post A Comment:

0 comments so far,add yours

Note: Only a member of this blog may post a comment.