ভয়েস অব পটিয়াঃ আগামীকাল ২১ মার্চ পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা ঘিরে নিরাপত্তা জোরদার করেছে প্রশাসন। প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে ৩ হাজারের অধিক পুলিশ সদস্য, র‌্যাব, প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্ট (পিজিআর), প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় নিয়োজিত স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স(এসএসএফ) সহ বিভিন্ন আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয় তৈরি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর জনসভা ঘিরে পটিয়ায় নিরাপত্তা জোরদার
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভাস্থল সংলগ্ন এলাকায় ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা স্থাপন
ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ আগামীকাল ২১ মার্চ পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা ঘিরে নিরাপত্তা জোরদার করেছে প্রশাসন। চট্টগ্রাম উত্তর, দক্ষিণ ও মহানগর  আ’লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এই জনসভাকে ঘিরে পটিয়াজুড়ে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার অবতরণের জন্য পটিয়ার কচুয়াই ইউনিয়নাধীন ফকিরপাড়া এলাকায় খালি জমিতে দু’টি ও চন্দনাইশের বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে একটি হেলিপ্যাড নির্মাণ করা হয়েছে। যার নির্মাণ কাজ গতকাল রাতে শেষ হয়েছে। এখন এসব হেলিপ্যাড এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুুলিশসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন কাজ করছেন। জনসভার মঞ্চ তৈরির কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে।

নিরাপত্তাজনিত কারণে জনসভাস্থলের আশপাশের ঘর-বাড়িতে পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার ও কাল বুধবার দু’দিন পরিবারের সদস্যদের বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র অবস্থান করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসভাস্থলের আশপাশের ঘর বিভিন্ন অফিস আদালত ব্যবসা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তীক্ষ্ম দৃষ্টি রাখা হয়েছে। এছাড়া জনসভাস্থল ও আশপাশের এলাকায় চালানো হচ্ছে বিশেষ পরিচ্ছন্ন অভিযান। এরই অংশ হিসেবে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঘর-বাড়ি, দোকানের সাইনবোর্ড পরিস্কার এবং নতুনভাবে রাঙানো হচ্ছে। পৌর কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে এ ব্যাপারে ঘর-বাড়ি, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। রাস্তার দু’ধারের ডিভাইডারগুলোতেও চলছে সাজসজ্জার কাজ।
প্রধানমন্ত্রীর জনসভা ঘিরে পটিয়ায় নিরাপত্তা জোরদার
এসএসএফ, ডিজিএফআই, এনএসআই এর সদস্যদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভাস্থল পরিদর্শন
প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে ৩ হাজারের অধিক পুলিশ সদস্য, র‌্যাব, প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্ট (পিজিআর), প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় নিয়োজিত স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স(এসএসএফ) সহ বিভিন্ন আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয় তৈরি করেছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন সংস্থা জনসভাস্থল ও আশপাশের এলাকা জুড়ে নানা তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। শুধু জনসভাস্থল নয় আশপাশের এলাকা ও কমলমুন্সির হাট এলাকায় নির্মিত হেলিপ্যাড এলাকায় প্রশাসন ব্যাপক নিরাপত্তা বলয় তৈরি করেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পটিয়ার এমপি সামশুল হক চৌধুরী ভয়েস অব পটিয়াকে জানান, ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পটিয়ার জনসভা হবে স্মরণকালের বৃহত্তর জনসভা। এ জনসভাকে ঘিরে কোনো ধরনের প্রস্তুতির কমতি নেই। জনসভাস্থলে বিশালাকৃতির দু’টি এলইডি পর্দা বসানো হচ্ছে। যাতে সবাই প্রধানমন্ত্রী ও জনসভার মঞ্চ দেখতে পান। তিনি জানান আইন শৃংখলা ও নিরাপত্তা বলয় থেকে শুরু করে সব দিক বিবেচনায় রেখে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। আ’লীগের নেতাকর্মীরা সকল দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে সবাই এক কাতারে এসে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে সফল করতে কোমর বেঁধে নেমেছেন। ঢাকা থেকে জনসভার জন্য দেড়শ’ ‘কলরেডি’ মাইক আনা হয়েছে। জনসভায় নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য জনসভাস্থল ও এর আশেপাশে ১৮০টি সিসি ক্যামেরা লাগানোর কাজ চলছে। এসব ক্যামেরা দ্বারা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে।
এ বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনকে সার্বিক সহায়তা করছেন বলেও জানান এমপি সামশুল হক।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর বিভাগ মো রেজাউল মাসুদ ভয়েস অব পটিয়াকে জানান, জনসভার দিন প্রধানমন্ত্রীর হেলিপ্যাড এলাকা থেকে শুরু করে জনসভাস্থল পর্যন্ত পুলিশ ও আইনশৃংখলা বাহিনীর বিশেষ ‘হিউম্যান ট্রেন’ তৈরি করা হবে। জনসভাস্থল ও আশেপাশে এসএসএফ, পিজিডি, পোশাকধারী পুলিশ ও সাদা পোশাকের চার স্তরের বিশেষ নিরাপত্তা বেষ্টনি তৈরি করা হবে। সাথে থাকবে মোবাইল পার্টি। তাছাড়া পুলিশের পক্ষ থেকে ৫০টি উচ্চ মাত্রার ‘ক্লোজ সার্কিট’ ক্যামেরা বসানো হবে। রাস্তায় ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নয়নে চন্দনাইশ থেকে পটিয়া ক্রসিং পর্যন্ত ৫শ’ ট্রাফিক পুলিশ দেয়া হবে। জনসভার আশপাশে হাইরাইজ বিল্ডিংগুলোর উপর ও নিচে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবেন। এছাড়া সাদা পোশাকে থাকবে পুলিশ সদস্যরা।

এ বিষয়ে পটিয়া থানার ওসি শেখ মোঃ নেয়ামত উল্লাহ জানান, যেহেতু প্রধানমন্ত্রী আসছেন। তাই এখানে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কোনো ধরনের অবহেলার সুযোগ নেই। প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের লোকজন সার্বক্ষণিক কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন।



পটিয়া সম্পর্কে জানতে আমাদের ফেসবুক পেজের সাথে থাকুন।
www.facebook.com/VoiceofPatiyaFans
Share To:

Voice of Patiya

Post A Comment:

0 comments so far,add yours

Note: Only a member of this blog may post a comment.