সর্বশেষ

Tuesday, March 2, 2021

দেশে মোট ভোটার ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন

দেশে মোট ভোটার ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন

দেশে মোট ভোটার ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram; ঢাকা; Dhaka; নির্বাচন কমিশন; Election Commission, ভোটার, Voter
ভোটার তালিকা হালনাগাদ - নির্বাচন কমিশন ভবন

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ সর্বশেষ ভোটার তালিকা হালনাগাদের পর দেশে বর্তমানে মোট ভোটার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জনে। এবার হালনাগাদে নতুন ভোটারের সংখ্যা বেড়েছে ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৬ জন। 
আজ মঙ্গলবার (০২ মার্চ) এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

এতে মোট ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ৬৫ লাখ ৯৮ হাজার ৫ জন। নারী ভোটার ৫ কোটি ৫১ লাখ ২২ হাজার ২২৩ জন। আর তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) ভোটার ৪৪১ জন। এবার হালনাগাদে মৃত্যুজনিত কারণে কর্তন করা হয়েছে ১৬ হাজার ৪৯৯ জনের নাম। তালিকায় নতুন ভোটার হয়েছেন ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৬ জন। 

এদিকে আজ ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ পালন করছে নির্বাচন কমিশন। এবারের প্রতিপাদ্য ‘বয়স যদি আঠার হয়, ভোটার হতে দেরী নয়’।

Tuesday, January 26, 2021

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী
ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী

ভয়েস অব পটিয়া-ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ  ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী। 

আজ মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারী ভারতের দিল্লীতে বাংলাদেশ সেনা-নৌ-বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত ১২২ সদস্যের একটি দল সামরিক কুচকাওয়াজে অংশ নিয়েছে।

‘শোন একটি মুজিবরের থেকে লক্ষ মুজিবরের কণ্ঠস্বরের ধ্বনি-প্রতিধ্বনি’ ব্যান্ডের তালের সঙ্গে কুচকাওয়াজে অংশ নেয় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর দলটি। বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত সশস্ত্র বাহিনীর ১২২ সদস্যের সমন্বিত কন্টিনজেন্টের নেতৃত্ব দেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আবু মুহাম্মদ শাহনূর শাওন। 

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ২৬ জানুয়ারী ভারতের ৭২ তম প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে অংশ নিতে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীকে আমন্ত্রণ জানায় ভারতের হাইকমিশন।

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে এই পর্যন্ত বাংলাদেশসহ মোট ৩টি দেশের সশস্ত্র বাহিনী অংশগ্রহণ করেছে। সেনা-নৌ-বিমানবাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত সশস্ত্র বাহিনীর কন্টিনজেন্টের কুচকাওয়াজে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ এই প্রথম।


Saturday, January 23, 2021

করোনা : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে নির্দেশনা জারি

করোনা : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে নির্দেশনা জারি

করোনা : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে নির্দেশনা জারি; করোনা; করোনা ভাইরাস; কোভিড-১৯; শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান; Corona; Corona Virus; Covid-19; School
করোনা : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে নির্দেশনা জারি

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় জনস্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নেয়ার জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

গতকাল শনিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. সৈয়দ মোঃ গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ০৪ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইডলাইন অনুসরণকল্পে এ নির্দেশনা জারি করা হয়। 

গাইডলাইন অনুযায়ী আগামী ০৪ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধানকে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা পাওয়া মাত্র প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত নোটিশগাইডলাইন

Thursday, January 7, 2021

একাত্তরের গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা চায় বাংলাদেশ

একাত্তরের গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা চায় বাংলাদেশ

একাত্তরের গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা চায় বাংলাদেশ; বাংলাদেশ; পাকিস্তান; ১৯৭১; মুক্তিযুদ্ধ; পাকিস্তানের বর্বরতা; পাকিস্তানের গণহত্যা; Liberation War; 1971, Bangladesh vs Pakistan; Genocide by Pakistan
একাত্তরের গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা চায় বাংলাদেশ

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তান কর্তৃক সংঘটিত গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের আনুষ্ঠানিক ক্ষমা চাওয়াসহ অমীমাংসিত দ্বিপক্ষীয় ইস্যুর সমাধানের গুরুত্ব উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ। 
সেই সাথে বাংলাদেশে আটকা পড়ে থাকা পাকিস্তানীদের প্রত্যাবাসন এবং সম্পদ ভাগাভাগির বিষয়টি নিষ্পত্তির করার আহবান জানিয়েছে বাংলাদেশ। 

আজ বৃহষ্পতিবার (০৭ জানুয়ারী) বাংলাদেশে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাই কমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলমের সাথে সাক্ষাৎ করলে বিষয়টি উত্থাপন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। 
‘প্রতিমন্ত্রী হাই কমিশনারকে স্বাগত জানিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলির সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক বাড়ানোর সরকারের অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত বৈদেশিক নীতি সম্পর্কে জানান। এই নীতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশ ব্যবসা-বাণিজ্যসহ দ্বিপক্ষীয় ব্যাপারে সম্পর্ক জোরদার করার প্রত্যাশায় রয়েছে বলে জানান তিনি। সেই সাথে সাফটা চুক্তিকে ব্যবহার করে, নেতিবাচক তালিকা শিথিল করে এবং বাণিজ্য বাধাগুলি অপসারণ করে আরও বেশি বাংলাদেশী পণ্যের প্রবেশাধিকার দেওয়ার জন্য পাকিস্তানের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, বর্তমান বাণিজ্য ভারসাম্য পাকিস্তানের দিকে ঝুঁকছে।’

বৈঠকে পাকিস্তানের হাই কমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী পাকিস্তান সরকার ও জনগণের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলমকে শুভেচ্ছা জানান এবং তিনি বলেন, বাংলাদেশের সাথে পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সম্ভাব্য সকল ক্ষেত্রে তিনি যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন।

উল্লেখ্য, উভয় পক্ষ দুদেশের পররাষ্ট্র বিষয়ক যৌথ সভার আয়োজনের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। সেই সাথে বাংলাদেশে দায়িত্ব পালনকালে পাকিস্তানের হাই কমিশনারকে সব ধরনের সহযোগীতার আশ্বাস দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।
ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন পেলো ‘বঙ্গভ্যাক্স’

ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন পেলো ‘বঙ্গভ্যাক্স’

করোনার ভ্যাকসিন ‘বঙ্গভ্যাক্স’  উৎপাদনে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন পেলো গ্লোব বায়োটেক; করোনা; করোনা ভাইরাস; করোনা ভ্যাকসিন; কোভিড-১৯; Covid-19; Covid; Corona; Vaccine
করোনার ভ্যাকসিন ‘বঙ্গভ্যাক্স’  উৎপাদনে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন পেলো গ্লোব বায়োটেক


ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ বাংলাদেশের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালসের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের উদ্ভাবিত ‘কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের‘ ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন পেয়েছে।

গ্লোব বায়োটেকের প্রধান  বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আসিফ মাহমুদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

গ্লোব বায়োটেক উদ্ভাবিত এই ভ্যাকসিটির নাম দেয়া হয়েছে বঙ্গভ্যাক্স। 
গত বছরের জুলাই মাসে প্রতিষ্ঠানটি করোনার এই ভ্যাকসিনটি উদ্ভাবন করেছে বলে দাবি করে। মার্চ মাস থেকে তারা এই ভ্যাকসিনটি তৈরির কাজ শুরু করে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ঠিকমতো চললে ওষুধ প্রশাসনের কাছ থেকে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন জানাবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রি-ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তালিকাভুক্ত বাংলাদেশী এ প্রতিষ্ঠানটির ৩টি ভ্যাকসিন ইঁদুরের উপর সফল পরীক্ষা চালানোর পর এই ভ্যাকসিনটি কার্যকর ও সম্পূর্ণ নিরাপদ বলে দাবি করেছে। উল্লেখ্য বর্তমানে বিশ্বে ১৫৬ টি কোভিড-১৯ করোনার ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পূর্বাবস্থায় রয়েছে। 

গ্লোব বায়োটেকের ব্যবস্থাপক ড. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, মানবদেহে প্রয়োগের আগে যে কোনো ড্রাগ বা ভ্যাকসিনের ম্যানুফ্যাকচারিং লাইসেন্সের প্রয়োজন হয়। গত ২৮ ডিসেম্বর তারা ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক কর্তৃক অনুমোদন পেয়েছেন। এখন তারা বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল থেকে অ্যান্টিজেন ক্লিয়ারেন্স নেবেন বলে জানান তিনি।


বিশ্বের অন্যান্য দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মত ‘কোভিড ১৯ করোনা ভাইরাসের’ ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দৌঁড়ে গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড একমাত্র বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠানটি।

আরও পড়ুন >> বাংলাদেশের উদ্ভাবিত ‘করোনার’ ভ্যাকসিন কিনবে নেপাল 

Tuesday, December 29, 2020

বেসরকারী কলেজে থাকবে না অনার্স-মাস্টার্স : শিক্ষামন্ত্রী

বেসরকারী কলেজে থাকবে না অনার্স-মাস্টার্স : শিক্ষামন্ত্রী

বেসরকারী কলেজে থাকবে না অনার্স-মাস্টার্স : শিক্ষামন্ত্রী; জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়; সংবাদ; সারাদেশ; বেসরকারী কলেজ; অনার্স; মাস্টার্স; ডিগ্রী; কারিগরী; টেকনিক্যাল; National University; Degree; Honors; Masters
বেসরকারী কলেজে থাকবে না অনার্স-মাস্টার্স : শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি


ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ ‘দেশব্যাপী ৩১৫ টি বেসরকারী কলেজ হতে ধাপে ধাপে অনার্স-মাস্টার্স কোর্স তুলে নেবে সরকার। অনার্স-মাস্টার্স কোর্সের বদলে এসব কলেজে ডিগ্রী পাস কোর্সের পাশাপাশি টেকনিক্যাল বিভিন্ন ট্রেড কোর্স খোলা হবে। এই প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়’-  এমনটাই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা আর সনদধারী বেকার তৈরি করতে চাই না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জেলায় জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করে দিচ্ছেন। কাজেই যারা অনার্স-মাস্টার্স করবেন তারা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই করবেন। শিক্ষিত বেকার যাতে তৈরি না হয় সেজন্য বেসরকারী কলেজগুলোতে ডিগ্রী পাস কোর্সের পাশাপাশি বিভিন্ন শর্টকোর্স চালু করতে পারি। বেসরকারী যেসব কলেজে অনার্স-মাস্টার্স কোর্স চালু আছে সেখান থেকে পাস করা বেশিরভাগ সনদধারী চাকরি পান না, ফলে বেকার থেকে যান। তাদের প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে বিরাট একটা ব্যবধান তৈরি হয়ে যায়, যারা এই পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যান তাদের মধ্যে ব্যাপক হতাশা তৈরি হয়। অভিভাবকদের জন্যেও এটি কোন সুখকর বিষয় নয়। অভিভাবকরা সন্তানকে কষ্ট করে পড়ালেন, তাদের একটি ভালো চাকরির প্রত্যাশা থাকে, চাকরি না হলে তখন হতাশা ঘিরে ধরে। কোনও একটা কিছু করবে সেটির জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা তারা অর্জন করতে পারে না। ফলে পিছিয়ে পড়ে বেকার বনে রয়ে যায়। এসব সমস্যাগুলো সমাধানের উদ্যোগ আমরা নিচ্ছি।’ 

উল্লেখ্য, এমপিওভুক্ত বেসরকারী কলেজগুলোর ডিগ্রী স্তরের শিক্ষকরা সরকারীবেতন-ভাতার অংশ পেলেও অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকরা সে সুবিধা পান না। যার ফলে বিগত ২৮ বছর ধরে বঞ্চনার শিকার তারা। 
ডিগ্রী স্তর পর্যন্ত পরিচালিত এমপিওভুক্ত বেসরকারী কলেজগুলোয় ১৯৯৩ সালে অনার্স-মাস্টার্স স্তরের কোর্স চালুর অনুমোদন দেয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। এসব কলেজ কর্তৃপক্ষ বিধিবিধান অনুযায়ী নির্ধারিত স্কেলে শিক্ষকদের মূল বেতন দেওয়ার শর্তে অনার্স-মাস্টার্সের বিষয় অনুমোদন নেয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট কলেজের টিউশন ফি থেকে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করার নির্দেশনা দেয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে। এর ফলে অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকের পদ কলেজগুলোর জনবল কাঠামোয় স্থান পায়নি। যার কারণে সরকারী বিধিবিধান অনুযায়ী এমপিওভুক্ত হওয়ার সুযোগ বঞ্চিত তারা।

অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকদের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, আমরা এসব সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নিচ্ছি। এতে হয়তো কিছুটা সময় লাগবে। কিন্তু আমরা যদি এমপিওভুক্তিতে এক ধরনের সিদ্ধান্ত নিই, আবার যদি ভিন্ন নতুন সিস্টেম চালু করি, তখন সমন্বয়টা করাটা জটিল হয়ে যাবে। এ কারণে এসব বিষয়ে আরও বিস্তর বিশ্লেষণের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

Thursday, December 24, 2020

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউসের মেয়াদ বৃদ্ধি

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউসের মেয়াদ বৃদ্ধি

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউসের মেয়াদ বৃদ্ধি; পটিয়ার কৃতি ব্যক্তিত্ব; শেখ হাসিনা; সচিবালয়

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ অবসরোত্তর ছুটি ও এ সংশ্লিষ্ট সুবিধাদি স্থগিতের শর্তে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব পটিয়ার কৃতি ব্যক্তিত্ব ড. আহমদ কায়কাউসকে একই পদে আরও দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার। 

সরকারী চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৪৯ ধারা অনুযায়ী গতকাল (২৩ ডিসেম্বর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোঃ অলিউর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ জারি করা হয়েছে।

আগামী ০১ জানুয়ারি বা যোগদানের তারিখ থেকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিবের এই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ কার্যকর হবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে। 

এর আগে সরকারী চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৪৩(১)(ক) ধারা অনুযায়ী আগামী ৩১ ডিসেম্বর থেকে তাকে অবসর প্রদান করে বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, ড. আহমদ কায়কাউস ১৯৮৪ ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে সরকারী চাকরিতে যোগ দেন। বিদ্যুৎ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব থাকাকালীন তাকে ভারপ্রাপ্ত সচিবের পদমর্যাদায় বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। পরে ২০১৬ সালের ১৫ ডিসেম্বর বিদ্যুৎ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব হন তিনি। ২০১৭ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি সচিব পদে পদোন্নতি পান। ২০১৯ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সিনিয়র সচিব পদে পদোন্নতি পান তিনি। গত বছর ২৯ ডিসেম্বর ড. আহমদ কায়কাউসকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়। তখন থেকে এখন অবধি তিনি প্রায় এক বছর যাবত এই পদে দায়িত্ব পালন করছেন। 



প্রজ্ঞাপন

Wednesday, December 23, 2020

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের পাশে থাকবে তুরস্ক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের পাশে থাকবে তুরস্ক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের পাশে থাকবে তুরষ্ক; turkey with bangladesh; recep tayyip erdogan


ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ মিয়ানমার থেকে গণহত্যা, নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া দশ লক্ষেরও অধিক রোহিঙ্গাকে নিজ দেশে প্রত্যাবাসনে তুরস্ক বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় সফররত তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসগ্লু। 

আজ বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘পদ্মা’য় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে তিনি এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গারা যাতে নিরাপদে মিয়ানমারে ফিরে যেতে পারেন, সেজন্য কাজ করবে তুরস্ক। তুরস্ক রোহিঙ্গা সংকটের একটি শান্তিপূর্ণ সমাধান চায়।’ 
এ সময় তিনি ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর পরামর্শ নেওয়ার প্রতি জোর দিয়ে বলেন, ‘তারা যেন ভালো থাকেন, সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়াটাই মূল সমাধান বলে মন্তব্য করেন তিনি।’

বাণিজ্য বিষয়ে প্রশ্নে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ-তুরষ্কের মধ্যকার এখন প্রায় এক বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য হয়। আমরা আগামীতে একে দুই বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করতে চাই।’

উল্লেখ্য, তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসগ্লু মঙ্গলবার রাতে দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন।
পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান। 
আজ বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। এ সময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের শুভেচ্ছা বার্তা পৌঁছে দেন। বেলা সাড়ে ১১ টায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। 
এরপর  ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসগ্লু।
অবসরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস

অবসরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস

অবসরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস


ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ চাকরির মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় অবসরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব পটিয়ার কৃতি ব্যক্তিত্ব ড. আহমদ কায়কাউস।
সরকারী চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৪৩(১)(ক) ধারা অনুযায়ী আগামী ৩১ ডিসেম্বর থেকে তাকে অবসর প্রদান করে আজ বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সেই সাথে ১৮ মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ ল্যাম্পগ্র্যান্টসহ আগামী ০১ জানুয়ারি হতে তাকে ১ বছরের অবসরোত্তর ছুটি (পি.আর.এল) মঞ্জুর করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, গত বছর ২৯ ডিসেম্বর ড. আহমদ কায়কাউসকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ দিয়ে  জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। তখন থেকে তিনি প্রায় এক বছর এই পদে দায়িত্ব পালন করলেন।
তবে, এখন পর্যন্ত নতুন করে কাউকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়নি। 

প্রশাসন ক্যাডারের ৮৪, ৮৫ এবং ৮৬ ব্যাচের মধ্য থেকে সরকারের বিশ্বস্ত কাউকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হতে পারে বলে এ নিয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে আলোচনা চলছে।

প্রজ্ঞাপন

Monday, December 21, 2020

করোনার সংক্রমণ এড়াতে মন্ত্রীসভার ফের নির্দেশনা

করোনার সংক্রমণ এড়াতে মন্ত্রীসভার ফের নির্দেশনা

করোনার সংক্রমণ এড়াতে মন্ত্রীসভার ফের নির্দেশনা

ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ এই শীতকালীন সময়ে দেশব্যাপী করোনার সংক্রমণ এড়াতে মুখে মাস্ক পড়া ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ফের নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রীসভা। 

আজ সোমবার (২১ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রীসভার এক ভার্চুয়াল সভায় এ নির্দেশনা দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। 

ভার্চুয়াল এই সভায় গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ও সচিবালয়ে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষ থেকে মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা অংশ নেন।

সভা শেষে এক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রীপরিষদ সচিব বলেন, “‘কোভিড-১৯ করোনা’র সংক্রমণ এড়াতে স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপ ও কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে মন্ত্রীসভার সদস্যদের অবহিত করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস মহামারীর মধ্যে বাসার বাইরে চলাচলের ক্ষেত্রে সবার মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে সরকার। 
এ নির্দেশনা নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আইন অমান্যকারীদের জেল-জরিমানা করা হচ্ছে। বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে ‘No Mask, No Service’ ব্যাপকভাবে স্থানীয় সরকারের মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে। গ্রামাঞ্চলে শিক্ষক, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, সমাজের গণ্যমান্য সচেতন ব্যক্তিকে এ কাজে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী করোনার সংক্রমণের উর্ধ্বগামীতায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সংক্রমণ এড়াতে আমাদের আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে যাতে যথাসম্ভব সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা হয়। 
এছাড়া মাস্কের ব্যবহারের কথা বার বার আলোচনায় আসছে। মাস্ক পড়া ছাড়া যাতে কেউ সেবা না পায় তা নিশ্চিত করতে হবে। এটি বাস্তবায়নে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেয়ার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগকে।”

Tuesday, December 8, 2020

বিতর্কিত কৃষি সংস্কার আইন : প্রতিবাদে ভারতজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ

বিতর্কিত কৃষি সংস্কার আইন : প্রতিবাদে ভারতজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ

বিতর্কিত কৃষি সংস্কার আইন : প্রতিবাদে ভারতজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ


ভয়েস অব পটিয়া-ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ ভারতে বিতর্কিত নতুন কৃষি সংস্কার আইন বাতিলের দাবিতে কৃষকদের আন্দোলনে সৃষ্ট অচলাবস্থার অবসান হয়নি এখনো। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে কৃষকদের বৈঠকে কোনো ফল না হওয়ায় পুনরায় অচলাবস্থার ডাক। 
বিতর্কিত এ কৃষি সংস্কার আইনগুলো বাতিলের দাবিতে ভারতের হাজার হাজার কৃষক বেশ কয়েকদিন ধরেই রাজধানী নয়াদিল্লির প্রবেশ মুখে অবস্থান নিয়েছেন। যার ফলে মহাসড়কে বন্ধ হয়ে গেছে যান চলাচল। 

ভারতীয় কৃষকদের মতে, ‘বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের নতুন পাশকৃত কৃষি সংস্কার আইনগুলো তাদের জীবন-জীবিকাকে হুমকির মুখে ঠেলে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার বলছে, মান্ধাতা আমলের বিপণন পদ্ধতি সংস্কারের লক্ষ্যেই নতুন এ আইনগুলো করা হয়েছে। এসব আইনের ফলে কৃষকরা তাদের ফসল বিক্রির ক্ষেত্রে আগের তুলনায় বেশি বিকল্প পাবেন বলেও ভাষ্য সরকারের।
কৃষকরা আরো জানান, ‘সরকারকে অবিলম্বে এ আইনগুলো বাতিল করতে হবে।’

দিল্লিতে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে আসা কৃষকদের বেশিরভাগই ভারতের শস্য উৎপাদক দুই রাজ্য হরিয়ানা ও পাঞ্জাবের বাসিন্দা। ভারতের ২ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন ডলার অর্থনীতির প্রায় ১৫ শতাংশই কৃষির উপর নির্ভরশীল। দেশটির ১৩০ কোটি জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। 
সংশ্লিষ্ট কৃষকদের আশঙ্কা, বিতর্কিত নতুন এ কৃষি সংস্কার আইনগুলো ভারতের নিয়ন্ত্রিত বাজার ব্যবস্থাকে ভেঙে দেবে, যার ফলে সরকারও ধীরে ধীরে নির্ধারিত মূল্যে গম ও ধান কেনা বন্ধ করে দেবে, এর ফলশ্রুতিতে তাদেরকে ফসল বেচতে বেসরকারি ক্রেতাদের সঙ্গে দর কষাকষিতে প্রতিযোগিতা করতে হবে। এ  আইনগুলো কৃষকদের জীবন-জীবিকাকে অনিশ্চিত অবস্থার দিকে ঠেলে দেবে বলে দাবি করে আইনগুলো বাতিলসহ উৎপাদিত ফসল সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে কিনতে সরকারের বাধ্যবাধকতা বহালসহ আরও বেশ কিছু দাবি জানিয়েছেন বিক্ষোভরত কৃষকরা ।

রয়টার্স অবলম্বনে

বিজ্ঞাপন

ad2

নিউজ আর্কাইভ