ভয়েস অব পটিয়াঃ করোনা প্রাদুর্ভাবে তড়িৎ গতিতে স্যানিটাইজার উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় বদলি করা হয়েছে দেশের একমাত্র রাষ্ট্রয়াত্ত ডিস্ট্রিলারি প্রতিষ্ঠান ‘কেরু অ্যান্ড কোং (বাংলাদেশ) লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জাহিদ আলী আনছারীকে।

করোনা : স্যানিটাইজার উৎপাদন করায় কেরুর এমডিকে বদলি; করোনা, করোনা ভাইরাস, কোভিড, কোভিড১৯, স্যানিটাইজার, কেরু এন্ড কোম্পানী, Corona, Corona Virus, Covid, Covid19, Sanitizer, Carew and Company
রাষ্ট্রয়াত্ত কোম্পানি কেরু এন্ড কোম্পানীর স্যানিটাইজার ‘কেরুজ হ্যান্ড স্যানিটাইজার’

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরুতে জাতীয় চাহিদার প্রেক্ষিতে তড়িৎ গতিতে স্যানিটাইজার উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নেয়ার পরপরই বদলি করা হয়েছে দেশের একমাত্র রাষ্ট্রয়াত্ত ডিস্ট্রিলারি প্রতিষ্ঠান ‘কেরু অ্যান্ড কোং (বাংলাদেশ) লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জাহিদ আলী আনছারীকে। 

২৪ মার্চ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের চীফ অব পার্সোনাল মোঃ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে তাকে ‘ইক্ষু উন্নয়ন ও গবেষণা পরিদফতরে’ সংযুক্ত করা হয়েছে। আকস্মিক এই বদলিতে বিষ্ময় প্রকাশ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তাদের মতে, ‘জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে যখনই হ্যান্ড স্যানিটাইজারের বিপুল চাহিদা-তখনই তড়িৎ গতিতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নেন এমডি জাহিদ আলী আনছারী। তার এই তড়িৎ সিদ্ধান্তের বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সহজভাবে মেনে নিতে পারেননি। এ কারণেই অযৌক্তিকভাবে বদলি করা হয় জাহিদ আলী আনছারীকে।’ 
এই বদলির ফলে সুলভমূল্যে দেশীয় হ্যান্ড স্যানিটাইজার মানুষের হাতে পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে জানা গেছে। 

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। বাংলাদেশেও উদ্ভব হয়েছে নজিরবিহীন সঙ্কটময় পরিস্থিতির। দেশে সঙ্কট তৈরি হয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের। ঝোপ বুঝে কয়েকটি স্যানিটাইজার উৎপাদনকারী কয়েকটি কোম্পানিও দাম বাড়িয়েছে কয়েকগুণ বেশি। এহেন পরিস্থিতিতে তড়িৎ সিদ্ধান্তে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন ও বিপণন শুরু করেছে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের (বিএসএফআইসি) আওতাভুক্ত প্রতিষ্ঠান কেরু অ্যান্ড কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জাহিদ আলী আনছারীর তত্ত্বাবধানে দ্রুততম সময়ের মধ্যে এটির বাজারজাত শুরু হয়। এ হ্যান্ড স্যানিটাইজারের মাধ্যমে ৯৯.৯৯ শতাংশ জীবাণু নষ্ট হবে বলে জানিয়েছেন কেরুর রসায়নবিদরা। 
‘কেরুজ হ্যান্ড স্যানিটাইজার’ নামে এ পণ্য বাজারে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। গত ২৩ মার্চ থেকে ‘কেরুজ স্যানিটাইজারের’ বিপণন শুরু হয়। প্রথম দিকে প্রায় ৫০ কার্টন (প্রতি কার্টনে ১০০ বোতল) উৎপাদন করা হয়েছে। এর পরদিনই ২৪ মার্চ বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের চিফ অব পার্সোনাল মোঃ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে অবসর গমনের সুবিধার্থে কেরু এন্ড কোম্পানির এমডি জাহিদ আলী আনছারীকে সদর দফতরের ‘ইক্ষু উন্নয়ন ও গবেষণা পরিদফতরে’ সংযুক্ত করতে বলা হয়।



জাতীয়-আন্তর্জাতিক সংবাদসহ পটিয়া সম্পর্কে জানতে ও জানাতে আমাদের ফেসবুক পেজের সাথে থাকুন।
Share To:

Voice of Patiya

Post A Comment:

0 comments so far,add yours