vop-ad1

ভয়েস অব পটিয়াঃ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে এশিয়ার দেশগুলোর নেতাদের সহযোগীতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এশিয়ার দেশগুলোর সহযোগীতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা; এশিয়া; সামিট; টোকিও; জাপান; বাংলাদেশ; Asia; Tokyo; Japan; Summit; Bangladesh; Myanmar; Burma; Rohingya
ভবিষ্যত এশিয়া সামিটে ভিডিও কনফারেন্সিং এ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত-গণহত্যার শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে এশিয়ার দেশগুলোর নেতাদের সহযোগীতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া দেশগুলোর মধ্যে যে কোনো সংকট আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। 
আজ শুক্রবার (২৭ মে) এক ভিডিও বার্তায় জাপানের রাজধানী টোকিওতে অনুষ্ঠিত ভবিষ্যৎ এশিয়া বিষয়ক ২৭তম আন্তর্জাতিক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। 

দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলন সরাসরি উপস্থিতি এবং অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সিং-লাইভ স্ট্রিমিং উভয় ক্ষেত্রেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবারের সম্মেলনের স্লোগান হচ্ছে ‘বিভক্ত বিশ্বে এশিয়ার ভূমিকা পর্যালোচনা করা।’ 
সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে এশিয়ার দেশগুলোর নেতাদের সহযোগীতা চেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত ১১ লাখ নাগরিককে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারের রাখাইন স্টেটে মর্যাদা ও নিরাপত্তার সঙ্গে ফেরত পাঠাতে সবার সহযোগীতা চাই।’

তিনি আরো বলেন, ‘এশিয়াকে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ও জনবহুল মহাদেশ। এখানে বিশ্বের জনসংখ্যার প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষ বসবাস করে। এটি বিশ্বের অধিকাংশ দরিদ্র মানুষেরও আবাসস্থল। অতএব আলোচনার মাধ্যমে মতপার্থক্য মিটিয়ে বিরোধপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে শান্তি নিশ্চিত করা অপরিহার্য। শুধু শান্তি ও স্থিতিশীলতার পরিবেশ সৃষ্টি করেই এশিয়ার দেশগুলো জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে পারে বলেও তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।'
Share To:

Voice of Patiya

জানাতে পারেন আপনার মন্তব্য :

0 comments so far,add yours

~ মন্তব্য নীতিমালা ~

• আমাদের প্ল্যাটফর্মে বুদ্ধিদীপ্ত এবং অর্থপূর্ণ বিতর্ক বজায় রাখার জন্য আমরা একটি নীতিমালা তৈরি করেছি। আমরা আশা করি যে, কোন মন্তব্য পোস্ট করার সময় আপনারা তার অনুসরণ করবেন। ভয়েস অব পটিয়া কর্তৃপক্ষ ভিজিটর কর্তৃক নির্দেশিকা লঙ্ঘন করে এমন মন্তব্যগুলো মুছে ফেলার অধিকার সংরক্ষণ করে।

• জাতি, ধর্ম, বর্ণ, বয়স, লিঙ্গ, চেহারা বা অক্ষমতার ভিত্তিতে কোনো ব্যক্তি, কোন গোষ্ঠী বা সম্প্রদায়ের প্রতি আপত্তিকর বা আক্রমণ করে এমন ভাষায় মন্তব্য করা যাবে না।

• আলোচনার বিষয়ের সাথে সম্পর্ক নেই এমন কোন মন্তব্য পোস্ট করবেন না। কিছু বিষয় বিস্তৃত হিসাবে গণ্য করা যেতে পারে, তবে আলোচনাকে লাইনচ্যুত করতে পারে এমন কোনো বিষয় অনুমোদন করা হবে না। বিতর্ককে ট্র্যাকে রাখার জন্য এটি করা হবে যাতে এটি অর্থবহ থাকে।

• কোনো পক্ষকে আইনি ঝামেলায় ফেলতে পারে এমন মন্তব্য করা যাবে না। এ নির্দেশনা -- মানহানিকর এবং মানহানিকর কমেন্টের পাশাপাশি কপিরাইট লঙ্ঘন বা অন্যান্য প্রযোজ্য বাংলাদেশী আইনের দিকে পরিচালিত করতে পারে এমন মন্তব্যের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

• বাণিজ্যিক প্রকৃতির কিংবা বিজ্ঞাপনীয় উপাদান/লিঙ্ক রয়েছে এমন মন্তব্য পোস্ট করবেন না।

• যেসব মন্তব্য স্প্যামিং বলে মনে হচ্ছে এবং একাধিক পোস্ট জুড়ে অভিন্ন মন্তব্য পোস্ট করছে সেগুলো মুছে ফেলা হবে।

• ঘৃণাত্মক, সহিংসতার প্ররোচনা দেয় অথবা ধর্মকে আক্রমণ করে এমন কোন মন্তব্য করা যাবে না।