ভয়েস অব পটিয়াঃ বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সদস্য পটিয়া’র গর্ব শাহাদাত হোসেন দীপু সিক্ত হয়েছেন এলাকার মানুষের ভালোবাসায়।

ফুলের মালায় সিক্ত বিশ্বকাপজয়ী দিপু, ফুলের মালায় বরণ করা হলো বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের; ভয়েস অব পটিয়া; পটিয়া; চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা; চট্টগ্রাম; চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক; ইন্দ্রপুল লবণ শিল্প, পটিয়া লবণ শিল্প, পটিয়া বাইপাস, চাঁনখালী খাল, কক্সবাজার; ঢাকা; টাঙ্গাইল; সন্তোষ; আওয়ামী লীগ; মুসলিম লীগ; ভাসানী নভোথিয়েটার; আসাম; পশ্চিমবঙ্গ; লংমার্চ; ফারাক্কা; শ্রীমাই খাল; শ্রীমতি খাল; Voice of Patiya
ফুলের মালায় সিক্ত বিশ্বকাপজয়ী শাহাদাত হোসেন দিপু

ভয়েস অব পটিয়া-
নিউজ ডিস্কঃ
 বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সদস্য পটিয়া’র গর্ব শাহাদাত হোসেন দীপু সিক্ত হয়েছেন এলাকার মানুষের ভালোবাসায়। 
গলায় ফুলের মালা, মিষ্টিমুখের মাধ্যমে বরণ করে নেয়া হয়েছে ক্রিকেটের এই বরপুত্রকে। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর শুলকবহর এলাকার বাসায় ফেরার সময় এ দৃশ্যের অবতারণা হয়। 

দিপুর গ্রামের বাড়ি ঐতিহ্যবাহী পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের চরকানাই গ্রামে হলেও বাবার চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চাকরির সুবাদে তাদের পুরো পরিবার চট্টগ্রাম নগরীর শুলকবহর এলাকায় রয়েছেন ১৯৮৩ সাল থেকেই। সেখানে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে প্রতিক্রিয়ায় দীপু বলেন, গত দুই বছর ধরে ভালো খেলছিলাম। আমাদের সবার লক্ষ্যই ছিল চ্যাম্পিয়ন হওয়া।  আমরা ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডে গেলাম। এশিয়া কাপে ফাইনাল খেলেছি। সেই ফাইনালে ৫ রানের ব্যবধানে হেরে যাওয়ার পর পরের ম্যাচে জয়টাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিই। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে ফাইনালে জয়ের পর আমরা সবাই খেলোয়াড়রা স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত ছিলাম। আমাদের কোচিং স্টাফও যথেষ্ট সাপোর্ট দিয়েছেন। এরকম কোচিং স্টাফ পাওয়া সত্যি খুবই ভাগ্যের ব্যাপার। আমরা সবাই খুব ভালো একটা টিম হিসেবে খেলেছি। আমার খেলাধূলায় আজকের এ অবস্থানে আসার পিছনে মা ফেরদৌস বেগম, বড় ভাই আবুল হোসেন বাবু আর দুলাভাই ছিলেন পাশে। পাড়ার ভাই সুদীপ্ত আমাকে ইস্পাহানী ক্লাবে ভর্তি করিয়ে দেন। সবসময় তিনি আমাকে সাহস ও সমর্থন দিয়ে গেছেন। আমিও সাকিব ভাই, তামিম ভাইদের মতো লিজেন্ড হতে চাই, ওয়ার্ল্ডের ১ নম্বর অলরাউন্ডার হতে চাই, চাই দেশের সেরা ব্যাটসম্যানের একজন হতে। 

রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশের যুবারা। শাহাদাত হোসেন দীপু স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলেছেন ৭৪ রানের ইনিংস। এবারের যুব বিশ্বকাপের ৬ ম্যাচে এক হাফ সেঞ্চুরিতে মোট রান করেছেন ১৩১। হাঁকিয়েছেন ১১ চার ও ১ ছক্কা। স্ট্রাইক রেট ৭৪। 


জাতীয় সংবাদসহ পটিয়া সম্পর্কে জানতে ও জানাতে আমাদের ফেসবুক পেজের সাথে থাকুন।
Share To:
Next
This is the most recent post.
Previous
Older Post

Voice of Patiya

Post A Comment:

0 comments so far,add yours

Note: Only a member of this blog may post a comment.