Articles by "কেলিশহর"
Showing posts with label কেলিশহর. Show all posts
পটিয়ার পূর্বাঞ্চল অভয়ারণ্য পাহাড়ে চলছে অবাধে বৃক্ষ নিধনের মহোৎসব; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram
পটিয়ার পূর্বাঞ্চল অভয়ারণ্য পাহাড়ে চলছে অবাধে বৃক্ষ নিধনের মহোৎসব; বাঁশ পাচারের দৃশ্য

ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ পটিয়া উপজেলার পূর্বাঞ্চল পাহাড়ে কমলাছড়ি, কুরুশিয়া, ধোপাছড়ি অভয়ারণ্যে সংশ্লিষ্ট বিট কর্মকর্তার যোগসাজশে বৃক্ষ নিধনের মহোৎসব চলছে। 

১২ জনের এসএনজি সদস্য টিম প্রধান আবু তাহেরের নেতৃত্বে কমিটি গঠন করে কমলাছড়ির বিট কর্মকর্তা শাহ আলম ও কুরুশিয়ার রেঞ্জার কাজী আলাউদ্দিনের যোগসাজোসে মাসোহারার বিনিময়ে অভয়ারণ্যে বৃক্ষ নিধনের ফলে সরকারের কোটি কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে প্রতিনিয়ত। ফলে একদিকে যেমন সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অন্যদিকে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। 

জানা যায়, গত ১৫ দিন পূর্বে এসএনজি টিম প্রধান আবু তাহেরের নেতৃত্বে অভয়ারণ্যে সরকারী গাছ, বাঁশ পাচারের সময় ১৬ ব্যক্তিকে আটকের পর কমলছড়ির বিট কর্মকর্তা শাহ আলম স্থানীয় আলমগীর সওদাগরের জিম্মায় ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে ওই ১৬ ব্যক্তিকে ছেড়ে দেয় বলে স্থানীয়রা অভিযোগ জানান। 

এছাড়াও আবু তাহেরের নেতৃত্বে পাহাড়ী সন্ত্রাসী জড়ো করে চোলাই মদ পাচার, স্থানীয় লোকজনদেরকে জিম্মি করে টাকা আদায়সহ একাধিক অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। বিশেষ করে রাঙ্গুনিয়ার কমলাছড়ি, কুরুশিয়ার, পটিয়ার পূর্বাঞ্চলে শ্রীমাই বিট, জঙ্গলশীধল, লালুটিয়া, লালপাহাড়, চন্দনাইশের ধোপাছড়ি, বোয়ালখালীর করলডেঙ্গা, বান্দরবানের রাজার হাট পাহাড়ে সরকারী সংরক্ষিত গাছ বাঁশ পাচারে একাধিকবার এ সংক্রান্ত সংবাদ স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলেও সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা না নিয়ে নীরব ভূমিকা পালন করছে।

বিষয়টি নিয়ে চট্টগ্রামের বন কর্মকর্তা বিপুল দাশের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঢাকায় একটি প্রোগ্রামে ব্যস্ত থাকার অজুহাতে কলটি কেটে দেন এবং এ ব্যাপারে পরে কথা বলে জানাবেন বললেও তাকে কল করে আর পাওয়া যায়নি। 
বাঁশ পাচারের ব্যাপারে বিট কর্মকর্তা শাহ আলম ও কুরুশিয়ার রেঞ্জার কাজী আলাউদ্দিনের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাদেরও কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে অভয়ারণ্য পাহাড়ে সরকারী বৃক্ষ নিধন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন পাহাড়ে বসবাসরতরা।
পটিয়ায় দুই জনের লাশ উদ্ধার; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram
পটিয়ায় দুই জনের লাশ উদ্ধার


ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ এবং রতনপুর এলাকা থেকে দুই জনের লাশ উদ্ধার করেছে পটিয়া থানা পুলিশ।

শুক্রবার (০২ অক্টোবর) হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের হুলাইন গ্রাম থেকে শফিকুল ইসলাম খান (৫৬) নামে এক মুক্তিযোদ্ধা ও কেলিশহর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের ছড়া পুকুরপাড় এলাকা থেকে আব্দুল মতিন (২৫) নামের নিখোঁজ এক যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা যায়, মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম খান একটি বেসরকারী একটি শিপিং কর্পোরেশনে কর্মরত ছিলেন।
আজ শুক্রবার দুপুরে এ মুক্তিযোদ্ধার লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারকারী দলের প্রধান পটিয়া থানার এস.আই সত্যরঞ্জন দাশ জানান, ‘স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে হুলাইন ইউনিয়নের একটি বাড়ীর খাচারী ঘর থেকে মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম খানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে রাতের আঁধারে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে কেউ এখানে  ফেলে রেখেছে। ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকেও বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

নিহতের ভাতিজা ও দক্ষিণ জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের আহবায়ক এস এম দিদারুল ইসলাম জসিম জানান, ‘তার চাচা মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একটি গ্রুপের সাথে জমি ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে উভয় পক্ষের নামে একাধিক মামলাও রয়েছে। এমনকি নিজের প্রাণনাশের আশঙ্কা প্রকাশ করে সম্প্রতি নিহত শফিকুল ইসলাম পটিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেছিলেন। তাদের সন্দেহ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাড়ী ফেরার পথে শ্বাসরোধ করে প্রতিপক্ষের লোকজনই চাচা শফিকুল ইসলামকে হত্যা করেছে।’  
জসিম আরো জানান, ‘বৃহস্পতিবার রাতে এলাকার একটি পুকুরে বড়শি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে রাত ১ টার দিকে সবার সাথে চা-নাস্তা সেরে নিজ বাড়ী থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে রনি নামের একজনে এগিয়ে দিতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে তিনি দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হন। সকালে স্থানীয় লোকজন বাড়ী থেকে এক কিলোমিটার দূরে আব্দুল বাতেনের খাচারি ঘরের সামনে তার লাশ দেখে আমাদের খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশসহ সেখানে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।’


এদিকে পটিয়া উপজেলার কেলিশহর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের ছড়া পুকুরপাড় এলাকার ঝোঁপ থেকে আব্দুল মতিন (২৫) নামের  নিখোঁজ এক যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (০২ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। 

ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধারকারী দলের নেতৃত্ব দেয়া পটিয়া থানার এস.আই থোয়াং বলেন, ‘গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে রতনপুর এলাকার আব্দুল মতিন নামে এক যুবক নিখোঁজ ছিল। শুক্রবার তার বাবার দেয়া খবরের ভিত্তিতে ছড়া পুকুরপাড় এলাকার একটি ঝোঁপ থেকে তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে কেউ খুন করে পুকুরের পাশের ঝোপের মধ্যে ফেলে দেয়। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে এবং লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে।’