Articles by "হাবিলাসদ্বীপ"
Showing posts with label হাবিলাসদ্বীপ. Show all posts
পটিয়ায় দুই জনের লাশ উদ্ধার; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram
পটিয়ায় দুই জনের লাশ উদ্ধার


ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ এবং রতনপুর এলাকা থেকে দুই জনের লাশ উদ্ধার করেছে পটিয়া থানা পুলিশ।

শুক্রবার (০২ অক্টোবর) হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের হুলাইন গ্রাম থেকে শফিকুল ইসলাম খান (৫৬) নামে এক মুক্তিযোদ্ধা ও কেলিশহর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের ছড়া পুকুরপাড় এলাকা থেকে আব্দুল মতিন (২৫) নামের নিখোঁজ এক যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা যায়, মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম খান একটি বেসরকারী একটি শিপিং কর্পোরেশনে কর্মরত ছিলেন।
আজ শুক্রবার দুপুরে এ মুক্তিযোদ্ধার লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারকারী দলের প্রধান পটিয়া থানার এস.আই সত্যরঞ্জন দাশ জানান, ‘স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে হুলাইন ইউনিয়নের একটি বাড়ীর খাচারী ঘর থেকে মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম খানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে রাতের আঁধারে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে কেউ এখানে  ফেলে রেখেছে। ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকেও বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

নিহতের ভাতিজা ও দক্ষিণ জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের আহবায়ক এস এম দিদারুল ইসলাম জসিম জানান, ‘তার চাচা মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একটি গ্রুপের সাথে জমি ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে উভয় পক্ষের নামে একাধিক মামলাও রয়েছে। এমনকি নিজের প্রাণনাশের আশঙ্কা প্রকাশ করে সম্প্রতি নিহত শফিকুল ইসলাম পটিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেছিলেন। তাদের সন্দেহ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাড়ী ফেরার পথে শ্বাসরোধ করে প্রতিপক্ষের লোকজনই চাচা শফিকুল ইসলামকে হত্যা করেছে।’  
জসিম আরো জানান, ‘বৃহস্পতিবার রাতে এলাকার একটি পুকুরে বড়শি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে রাত ১ টার দিকে সবার সাথে চা-নাস্তা সেরে নিজ বাড়ী থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে রনি নামের একজনে এগিয়ে দিতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে তিনি দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হন। সকালে স্থানীয় লোকজন বাড়ী থেকে এক কিলোমিটার দূরে আব্দুল বাতেনের খাচারি ঘরের সামনে তার লাশ দেখে আমাদের খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশসহ সেখানে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।’


এদিকে পটিয়া উপজেলার কেলিশহর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের ছড়া পুকুরপাড় এলাকার ঝোঁপ থেকে আব্দুল মতিন (২৫) নামের  নিখোঁজ এক যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (০২ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। 

ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধারকারী দলের নেতৃত্ব দেয়া পটিয়া থানার এস.আই থোয়াং বলেন, ‘গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে রতনপুর এলাকার আব্দুল মতিন নামে এক যুবক নিখোঁজ ছিল। শুক্রবার তার বাবার দেয়া খবরের ভিত্তিতে ছড়া পুকুরপাড় এলাকার একটি ঝোঁপ থেকে তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে কেউ খুন করে পুকুরের পাশের ঝোপের মধ্যে ফেলে দেয়। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে এবং লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে।’
পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ভস্মিভূত ১০ পরিবারের ঘরবাড়ি; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram
পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ভস্মিভূত ১০ পরিবারের ঘরবাড়ি

ভয়েস অব পটিয়া-হাবিলাসদ্বীপ প্রতিনিধিঃ পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের পাঁচুরিয়ার ৪ নং ওয়ার্ড খালেক সওদাগরের বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে অন্তত ১০ টি পরিবারের ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়েছে। 

আমাদের হাবিলাসদ্বীপ প্রতিনিধ জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে খালেক সওদাগর এর বাড়ির আকবর এর ঘরে থাকা সৌরবিদ্যুতের লাইন থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। স্থানীয় লোকজন এবং ফায়ার ব্রিগেড এর সহায়তার প্রায় ২ ঘন্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে অন্তত ১০ টি পরিবারের প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামালের ক্ষয়ক্ষতি হয় বলে জানা যায়। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর ঘরের মাটি ছাড়া বাকি সবকিছু পুঁড়ে ছাই হয়ে গেছে।

অগ্নিকান্ডে আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ এক ব্যবসায়ী নুরুল হুদা চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভয়েস অব পটিয়া’কে বলেন, ‘তার নগদ ৫ লক্ষ টাকার অধিক পুঁড়ে ছাই হয়ে গেছে।’

এদিকে এই ঘটনার দিন রাত ১২ টার দিকে অগ্নিকান্ডস্থল পরিদর্শন করেন হাবিলাসদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান, পটিয়া থানার একটি দল এবং অন্যান্য ইউপি সদস্যরা। তারা ক্ষতিগ্রস্থদের প্রয়োজনীয় সহায়তার আশ্বাস দেন।
পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রাস্তার বেহাল দশা; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram
পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রাস্তার বেহাল দশা

ভয়েস অব পটিয়া-হাবিলাসদ্বীপ প্রতিনিধিঃ পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রাস্তার বেহাল দশা-চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে। 

সরেজমিনে পরিদর্শনে আমাদের হাবিলাসদ্বীপ প্রতিনিধি জানান, এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন ৫০-৬০ টি ট্রাক (যার ওজন ৫০ টনের অধিক) আসা যাওয়া করে। যা শিকলবাহা পাওয়ার প্ল্যান্টের নতুন বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সিলেটের পাথর আনা-নেওয়া করে। এত ছোট রাস্তায় এই অধিক পরিমাণ ভারী ট্রাক চলাচলের ফলে রাস্তাটির পলস্তেরা-পাথর উঠে গিয়ে এখন এটি খালে পরিণত হয়েছে। যার দরুণ এই রাস্তায় নিয়মিত চলাচলকারী ছোট গাড়িগুলো প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। ফলে অনেক মানুষ নানাভাবে গুরুতর হওয়ার আশঙ্কায় দিনানিপাত করছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে তারা ভয়েস অব পটিয়া’কে বলেন, উক্ত রাস্তাটি দ্রুত মেরামত করে যাত্রীগণকে নির্বিঘ্নে চলাচলের পথকে সুগম করে দেওয়ার জন্য স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ এবং ‍উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রতি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।