"নির্বাচন" ক্যাটাগরীর সকল আর্টিকেল
নির্বাচন লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান

রাত পোহালেই পটিয়ার ১৭ ইউনিয়নের নির্বাচন; ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন; নির্বাচন কমিশন; ইভিএম; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram; Union; Election; Up Election; Election Commission; Local Government
রাত পোহালেই পটিয়ার ১৭ ইউনিয়নের নির্বাচন


ভয়েস অব পটিয়া-নিউজ ডেস্কঃ রাত পোহালেই পটিয়া উপজেলার ইউনিয়নগুলোর নির্বাচন। ২৬ ডিসেম্বর ৪র্থ ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পটিয়ার ১৭ ইউনিয়নের - শোভনদন্ডী, বড়লিয়া ও দক্ষিণ ভূর্ষি ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী ইতিমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিনাভোটে চেয়ারম্যান হতে যাচ্ছেন। এসব ইউনিয়নের সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত আসনের সদস্য পদ সহ বাকি ১২টি ইউনিয়নে ব্যালট পেপারে এবং ২টি ইউনিয়ন- হাবিলাসদ্বীপ, কুসুমপুরা ইউনিয়নে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

পটিয়ার ইউনিয়নগুলো হচ্ছে, কোলাগাঁও, কাশিয়াইশ, আশিয়া, কুসুমপুরা, জিরি, জঙ্গলখাইন, বড়লিয়া, ধলঘাট, হাবিলাসদ্বীপ, হাইদগাঁও, কেলিশহর, কচুয়াই, খরনা, শোভনদন্ডী, ভাটিখাইন, ছনহরা এবং দক্ষিণ ভূর্ষি। 

ইউনিয়নগুলো ১৬০ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১০০ টি কেন্দ্র বেশি ঝুঁকিপূর্ণ বলে চিহ্নিত করেছে নির্বাচন কমিশন ও পটিয়া উপজেলা প্রশাসন। যার মধ্যে কুসুমপুরা, কোলাগাঁও, হাবিলাসদ্বীপ, জঙ্গলখাইন, ছনহরা, কচুয়াই, হাইদগাঁও, ধলঘাট, খরনা, জিরি, কাশিয়াইশ ও আশিয়া ইউনিয়নের ৫০টি ভোটকেন্দ্রকে অধিক গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আরাফাত আল হোসাইনী নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পর্কে ভয়েস অব পটিয়া’কে বলেন, ‘পটিয়ার ১৭টি ইউনিয়নে নির্বাচনের জন্য আমরা সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত। নির্বাচন গ্রহণে যতটুক প্রস্তুতি দরকার তা আমরা সম্পন্ন করতে পেরেছি। নির্বাচনী সামগ্রীসহ ব্যালট পেপার পৌঁছে গেছে। এলাকাগুলোতে ব্যালট পেপার বন্টন শুরু হয়েছে।’

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সংঘাত-খুনের মত ঘটনা ঘটেছে। পটিয়া উপজেলার ইউনিয়নগুলোর নির্বাচনে সকলের অংশগ্রহণে একটি ভোট উৎসব প্রত্যাশা করা হলেও এটি উৎসবের হবে, নাকি শঙ্কার?? তা নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সংশয়ের সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা শুরুর পর ইউনিয়নগুলোর বিভিন্ন স্থানে পাল্টাপাল্টি এক পক্ষের আরেক পক্ষের উপর হামলা-ভাঙচুরে ভোটের দিন অবাধ, সুষ্ঠু পরিবেশ বিনষ্টের আশঙ্কা করা হচ্ছে। নির্বাচনের অংশগ্রহণকারী রাজনৈতিক দলগুলো সমর্থিত প্রার্থী, বিদ্রোহী প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা এ ধরনের সহিংসতার জন্য একে অন্যকে দোষারোপ করেছে। তাছাড়াও আধিপত্য বিস্তার, বহিরাগত প্রবেশ ইত্যাদি নানা কারণে সংঘর্ষ-সংঘাতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার গুরুত্বপূর্ণ এই নির্বাচনকে ঘিরে অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব, আনসার এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত অন্যান্য সংস্থাকে মোতায়েন করা হয়েছে। 

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান ভয়েস অব পটিয়া’কে বলে, ‘একটি সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের লক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণের সরঞ্জাম পৌঁছানো হচ্ছে। তবে ব্যালট পেপার যাবে ভোটগ্রহণের দিন ভোরে। অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের জন্য সকল ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।’ 

দেশে মোট ভোটার ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram; ঢাকা; Dhaka; নির্বাচন কমিশন; Election Commission, ভোটার, Voter
ভোটার তালিকা হালনাগাদ - নির্বাচন কমিশন ভবন

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ সর্বশেষ ভোটার তালিকা হালনাগাদের পর দেশে বর্তমানে মোট ভোটার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জনে। এবার হালনাগাদে নতুন ভোটারের সংখ্যা বেড়েছে ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৬ জন। 
আজ মঙ্গলবার (০২ মার্চ) এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

এতে মোট ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ৬৫ লাখ ৯৮ হাজার ৫ জন। নারী ভোটার ৫ কোটি ৫১ লাখ ২২ হাজার ২২৩ জন। আর তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) ভোটার ৪৪১ জন। এবার হালনাগাদে মৃত্যুজনিত কারণে কর্তন করা হয়েছে ১৬ হাজার ৪৯৯ জনের নাম। তালিকায় নতুন ভোটার হয়েছেন ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৬ জন। 

এদিকে আজ ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ পালন করছে নির্বাচন কমিশন। এবারের প্রতিপাদ্য ‘বয়স যদি আঠার হয়, ভোটার হতে দেরী নয়’।
অর্ধকোটি নাগরিক পাবেন ‘সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র’'; পটিয়া; চট্টগ্রাম; Patiya; Chittagong; Chattogram; ঢাকা; নির্বাচন কমিশন; জাতীয় পরিচয়পত্র; Dhaka; Election Commision; EC; NID
অর্ধকোটি নাগরিক পাবেন ‘সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র'

ভয়েস অব পটিয়া-ন্যাশনাল ডেস্কঃ ভোটার তালিকাভুক্ত হয়েও জাতীয় পরিচয়পত্র না পাওয়া প্রায় অর্ধকোটি নাগরিককে ‘সাময়িক এনআইডি’ দেওয়ার ব্যবস্থা নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন।

সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহারের বিষয়ে মতামত ও সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়টি রয়েছে মঙ্গলবারের কমিশন সভার আলোচ্যসূচিতে। আর অনুমোদন পেলে তা বাস্তবায়ন করবে জাতীয় পরিচয় ও নিবন্ধন অনুবিভাগ।

উল্লেখ্য, দেশের ৯ কোটি ৬২ লাখেরও বেশি ভোটারের মধ্যে ৪৭ লাখের মতো নাগরিকের হাতে কোনো জাতীয় পরিচয়পত্র নেই। এই অর্ধকোটি নাগরিক গত হালনাগাদে তালিকাভুক্ত হয়েছিলেন। 

এনআইডি উইং মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সুলতানুজ্জামান মোঃ সালেহ উদ্দীন সাময়িক এনআইডির বিষয়টি পরিষ্কার করে বলেন, ‘৪৭ লাখের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র নেই। তাদের যে কোনো জরুরী কাজে আমরা প্রভিশনাল এনআইডি দেওয়ার পরিকল্পনা নিচ্ছি। ইসির নির্ধারিত ওয়েবসাইটে লগ-ইন করে শুধু ওই তালিকাভুক্ত ভোটাররাই প্রিন্ট ভার্সনের সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র পাবেন বলেও জানান তিনি।’
তিনি আরো জানান, ‘সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্রে আবেদনকারীর নাম, পিতা, মাতা, জন্মতারিখ, ঠিকানার পাশাপাশি ও যন্ত্রে পাঠযোগ্য বারকোড থাকবে। এই ‘প্রভিশনাল এনআইডি’ ব্যবহার করা যাবে স্মার্টকার্ড হাতে না পাওয়া পর্যন্ত। ‘পার্মানেন্ট এনআইডি (স্মার্টকার্ড)’ না পাওয়া পর্যন্ত প্রভিশনাল এনআইডি ব্যবহারের সুযোগ থাকবে। নির্বাচন কমিশন অনুমোদন দিলেই এ অনলাইন সার্ভিস আমরা ওপেন করে দিব।’

৯ কোটিরও বেশি নাগরিকের হাতে থাকা লেমিনেটেড জাতীয় পরিচয়পত্র ফিরিয়ে নিয়ে শিগগির উন্নতমানের স্মার্ট এনআইডি দেওয়ার কথাও রয়েছে। আগামী বছরের জুনের মধ্যে এসব নাগরিকের হাতে স্মার্টকার্ড দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসি।

বর্তমানে দেশজুড়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম চলছে। এতে নতুন করে ৭২ লাখ ভোটারযুক্ত হবে। তাদের জন্যও এ সুযোগ থাকছে বলে জানিয়েছে এনআইডি উইং।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, যন্ত্রে পাঠযোগ্য এই সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট, ভর্তিসহ প্রয়োজনীয় সকল কাজ করা যাবে।